The Shortcut Method of Letter Writing in S.S.C & H.S.C Exams

For writing any kind of informal or personal letter, this letter writing format can be applied in J.S.C, S.S.C & H.S.C Exams as a short-cut method. This letter is composed based on some common features of letter. But, of course this is not complete yet. You have to attach some information based on the topic of question. Only then, you may expect the perfectness. If you memorize this letter, you will be able to answer 90 % of any letter in exam in spite of not getting common.

জে.এস.সি, এস.এস.সি, এবং এইচ.এস.সি পরীক্ষায় যে কোন ধরনের চিঠি লেখার জন্য এই রূপটি ব্যবহার করা যেতে পারে।এই চিঠিটি লেখা হয়েছে বিভিন্ন এবং সাধারন চিঠির কিছু পরিচিত ও সুনির্দিষ্ট বৈশিষ্ট্যর উপর নির্ভর করে। কিন্তু অবশ্যয় এই চিঠিটি পরিপূর্ণ নয়।তোমাকে অবশ্যয় প্রশ্নের উপর নির্ভর করে চিঠির মূল বিষয় বস্তুর উপর কিছু তথ্য দিতে হবে।শুধুমাত্র,তখনি তুমি এটিকে পরিপূর্ণ বলতে পারবে।যদি তুমি এই রূপটি মুখশ্ত করে রাখো তবে তোমার পরীক্ষায় চিঠি কমন না আসলেও তুমি তার ৯০% উত্তর লিখে আসতে পারবে।

Remember, One thing, this method is not applicable for the meritorious students. This is composed only for the students who are unable to get the pass mark in their exams. Moreover, those who want to memorize all letters can memorize this letter and some lines from different letters on topic. So they need not memorize each letter from top to bottom.

কিন্তু একটা কথা মনে রাখবে, এই কৌশলটি মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য প্রযোজ্য নয়।এটি শুধুমাত্র পরীক্ষায় সহজে নিশ্চিত ভাবে পাশ নম্বর পাবার এক কৌশলমাত্র। আর যারা সব চিঠিগুলো আলাদা ভাবে মুখস্ত করবে তারাও এই চিঠিটি পড়ে তার সাথে যদি প্রতিটি ভিন্ন চিঠির বিষয় বস্তুর কয়েকটি করে লাইন মুখস্ত করো তবে প্রতিটি চিঠি প্রথম হতে শেষ পর্যন্ত বারেবার মুখস্ত করতে হচ্ছেনা।

There is also same short-cut method on Application Writing-1 for the S.S.C & H.S.C examinees. You can also add that copy to your preparation. This model of letter is composed in such a way that, you can write any letter to your friends or family members regarding your personal issues using it.

এই চিঠিটির রূপ এমন ভাবে গঠন করা হয়েছে যা ব্যবহার করে তুমি তোমার বন্ধু বা পরিবারের কারো কাছে যেকোনো ব্যক্তিগত বিষয়ে চিঠি লিখতে পারবে।

Here, some examples of personal letter are given in which you can use this model.
এখানে কিছু চিঠির নাম দিলাম যেগুলো লেখার ক্ষেত্রে তুমি এই মডেলটি ব্যবহার করতে পারোঃ

Informal Letter Writing

QUESTION MODEL: ”Write a letter to your friend/brother/father/uncle …….”
”একটি চিঠি লেখো তোমার বন্ধুর/ভাই/বাবা/চাচার কাছে… ”

(describing an accident you have witnessed/ expressing your condolence at his/her father’s death describing the recent fair of your village/describing the picnic you have enjoyed recently/ describing the annual prize giving ceremony of your school. /describing the spending of last summer vacation/suggesting how to improve your proficiency in English/thanking him for the hospitality shown to you by him and other member of his family/describing foods and food-habits of the people of Bangladesh.)

____________________________________________________________

Format of Informal Letter  (চিঠি লেখার রূপঃ)

15 February 2014     (date of letter writing-যে তারিখে চিঠি লেখা হচ্ছে)
15 Central road ,Mirpur  (address of yourself-তোমার বর্তমান ঠিকানা)
Dhaka

Dear father/mother/brother/sister/friend/`x`
(The person whom you are writing-সেই ব্যক্তি যার কাছে চিঠি লেখা হচ্ছে)

It’s great pleasure of hearing from you after a long time. Your letter is just to hand. Hope you are well by the grace of Allah. I am also fine. It is expect able that everything is going rightly. Your last letter is too remarkable to me. Your words are always pleasurable and informative to me. Now, nothing special but I want to tell you about

 —————————————————————————————————————————————

(you can add some logical sentences on topic)

(তুমি মূল বিষয়বস্তুর উপর কিছু যুক্তিসঙ্গত বাক্য যুক্ত করতে পারো)

—————————————————————————————————————————————-

Anyway, the letter is getting long. No more today. Convey my best regards to your parents and affection to the younger ones. Hope to see you soon. And of course don’t forget to write to me. Take care.

Your son/brother/ever
(your name-তোমার নাম)

                  `Y` 

Instruction on writing a letter:
চিঠি লেখার জন্য কিছু নির্দেশনাঃ

 

  • The parts of application, which are in bold size, will be changed according to the question.
  • চিঠির যে অংশগুলো মোটা কালিতে দেওয়া আছে তা প্রশ্ন পত্র অনুযায়ী পরিবর্তন করতে হবে।

 

  • If the name and address of letter sender or receiver is mentioned in question, you must use those name and address through letter but if there is no name or address mentioned, you have to use symbolical words such as ‘X’, ‘Y’, ‘Z’ as name and address.
  • প্রশ্নে যদি চিঠি যে লিখবে বা যার কাছে লিখবে তার নির্দিষ্ট নাম, ঠিকানা দেওয়া থাকে তবে সেটাই লিখতে হবে। আর যদি না থাকে তবে সেই স্থানগুলোতে সাঙ্কেতিক চিহ্ন ‘X’, ‘Y’, ‘Z’ ব্যবহার করতে হবে।

 

  • After writing a letter, you must draw an envelope in order to get the full marks in exam. In case of drawing envelop, you should always remember that on left side, you have to write ‘from’ and your address. Then, on right side, you will write ‘to’ and the address of the person to whom you are sending the letter.
  • চিঠি লেখার শেষে অবশ্যয় তোমাকে খাম আঁকাতে হবে। যদি তুমি কোন খাম না দাও তবে চিঠিতে পরিপূর্ণ নম্বর পাবেনা। খাম আঁকানোর ক্ষেত্রে মনে রাখবে বাম পাশে লিখে তোমার ঠিকানা লিখতে হবে আর ডান পাশে লিখে যার কাছে চিঠি যাবে তার ঠিকানা দিতে হবে।

 

Again the same point, if you put some logical sentences in your letter, you will get the full marks. You should memorize some sentences of various letters from your English 1st paper book.

আবারো বলছি যদি তুমি চিঠির মধ্যে কিছু যুক্তিসঙ্গত বাক্য বিষয়বস্তুর সাথে মিল রেখে যুক্ত করো তবে তুমি পূর্ণ নম্বর পাবে। এজন্য তোমার ইংরেজি ১ম পত্র বই হতে বিষয়বস্তুর উপর কয়েকটি বাক্য মুখুস্ত করে নিতে পারো। আর বেশি কিছু নয়। শুধু এই নিয়ম গুলোর প্রতি খেয়াল রেখো। আশা করি তুমি তোমার পরীক্ষায় প্রত্যাশিত নম্বর পাবে। ধন্যবাদ! ভালো থেকো।

That’s all of the process of The Short-cut method of Letter Writing in S.S.C & H.S.C Exams. Just follow it and have an expected figure in your exams.

Thank you very much. 

Leave a Comment